কানাডার দিনলিপি-৩



- ২০ এপ্রিল ২০২১, ভ্যানকুভার, কানাডা -


টেবিলে কম্পিউটারে বসে ছিলাম। উত্তরমুখী জানালার দিকে। ফুরফুরে বাতাস ঢুকছে। আমার রুম দোতালায়। নীচ থেকে মনে হলো নাম ধরে কেউ ডাকছে। জানালা দিয়ে মাথা বের করে দেখি বাড়িওয়ালি হাসিমুখে ডাকছে বাগান থেকে।


গিয়ে দেখি জ্বলন্ত আগুন-রঙা কয়েকটা টিউলিপ ফুটেছে বাগানে। ডাকাডাকির হেতু বোঝা গেল।


টিউলিপ শরতে লাগাতে হয়। শীতের আগে আগে। ফুল হয় বসন্তে, কানাডার সময়ে এপ্রিলে। গোল গোল টিউলিপ বাল্ব গুলা মাটিতে পুতে দিতে হয়। পেয়াজের মত দেখতে। কাঠবেড়ালিরা মাটি খুড়ে নাকি এগুলা খেয়ে ফেলে। কি পাজি।


ছবি নিতে গিয়ে দেখি ফুলের ভেতর একটা শুয়োপোকা।প্রজাপতির ছানা! গুটি গুটি পায়ে এদিক ওদিক করছে। ছোটবেলায় ছ্যাংগা বলতাম।


বাড়িওয়ালি খ্যাপা ট্র্রুডোর ওপরে। ভ্যাক্সিনের ফার্স্ট শট নিয়েছেন। সেকেন্ড শটের জন্য আরো মাস খানেক অপেক্ষা। নিউইয়র্কের চিড়িয়াখানার শিম্পাঞ্জীগুলাও ক্যানাডিয়ানদের আগে ডাবল ডোজ পেয়ে যাবে- তার ধারনা। ভ্যাক্সিন নিয়ে খানিকক্ষন ট্র্রুডোকে তুলোধুনা করলেন। আমি শুনি আর 'সহমত ভাই' এর অভিনয় করি। মনে মনে অবশ্য ট্র্রুডো ভাই জিন্দাবাদ বলি।


টিউলিপের পাশেই চুপ করে সাদা হায়াসিন্থ ফুটে আছে। বেলি ফুলের মত মিস্টি একটা ঘ্রান আছে। দুটোকে পাশাপাশি দেখে মজা পেলাম। অতি-মেকাপ-রঞ্জিত মেয়ে টিউলিপ। পাশে সিমসাম ন্যাচারাল বিউটি শ্বেতাভ হায়াসিন্থ।


এনাদের পাশে একটু দূরে হলুদ-রঙা বুনোসুন্দরী ড্যান্ডেলিয়ন। ড্যান্ডেলিয়নকে উঠোনের আগাছা ভাবে অনেকেই। আমার কিন্ত দেখতে ভাল্লাগে বেশ।


একটু দুরেই আরেক সুন্দরীর উপর চোখে পড়ল টবে। ছোট ছোট হাল্কা বেগুনি পাপড়ি। মাঝখানে হলদে। গুচ্ছ করে রাখলে যা সুন্দর লাগবে!পিঁপড়ারা নাকি এই গাছের প্রতি বেশ আকৃষ্ট হয়।ওদের বাসা বানায়।


বাড়িওয়ালিকে জিজ্ঞাসা করতেই বলল ওটা ফরগেট-মি-নট। দুম করে ছোট বেলার ভয়েস ন্যারেশনের কথা মনে পড়ল। এই ফুলের নাম দিয়ে কত এক্টিভ-প্যাসিভ ভয়েস করছি। ইংলিশ স্যার ইচ্ছা করেই আমাদের ডজ দিত। এই ফুলের নাম দিয়ে প্রশ্ন করতো। নামটাকে ক্রিয়াপদ মনে করে ডজ খেতাম আমরা।


আমি এত ফুল গাছ চিনতাম না। এই বাসায় এসে বাড়িওয়ালির কাছ থেকে একটু শিখা হয়েছে। যত শিখা হচ্ছে ততই গাছের প্রতি ভালোবাসা বেড়ে গেছে। এখন ইচ্ছা হয় খুব বাগান করতে।


লেখক:

Md Nazmul Hasan Topu,

প্রতিষ্ঠাতা, Scholarship School BD

পিএইচডি গবেষক, ইউনিভার্সিটি অব ব্রিটিশ কলাম্বিয়া, ভ্যানকুভার, কানাডা


দয়া করে অনুমতিহীনভাবে লিখা কপি করবেন না। ধন্যবাদ।





40 views0 comments